সুচির রিমান্ড ১৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত

সেনবাহিনীর হাতে গ্রেফতার মিয়ানমারের ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসির নেত্রী অং সান সু চির রিমান্ডের মেয়াদ প্রাথমিকভাবে সোমবার পর্যন্ত ধারণা করা হলেও তা বুধবার পর্যন্ত বলে জানিয়েছেন তার আইনজীবী।রাজধানী নেপিদোতে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন। আইনজীবী খিন মুং জ জানান, রাজধানী নেপিদোর একটি আদালতের বিচারক জানিয়েছেন, মিয়ানমারের সাবেক স্টেট কাউন্সিলরের রিমান্ড আজ শেষ হচ্ছে না। এটি ১৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

সু চির আইনজীবী দলের একজন সদস্য জানিয়েছেন, ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বিচারক সু চির সঙ্গে কথা বলেছেন। সু চি জানতে চেয়েছেন তিনি একজন আইনজীবী নিয়োগ করতে পারবেন কিনা?বিচারপ্রক্রিয়া নিরপেক্ষ হবে কিনা রয়টার্সের সাংবাদিকের এমন প্রশ্নে সু চির আইনজীবী খিন মুং বলেন, এটি নিরপেক্ষ হবে কী হবে না, সে সিদ্ধান্ত আপনি নিজেই নিতে পারেন।

মিয়ানমারের ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসির (এনএলডি) নেত্রী অং সান সু চিসহ অন্য শীর্ষ নেতাদের আটক করে গত ১ ফেব্রুয়ারি দেশটির নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করে ক্ষমতা দখলে নেয় সেনাবাহিনী। এর প্রতিবাদে টানা ১০ দিনের মতো আজ সোমবারও বিক্ষোভ করছে সেনাশাসন বিরোধী জনতা।

মিয়ানমারের জান্তা সরকার বিক্ষোভ রুখতে সড়কে সড়কে সাঁজোয়া যান মোতায়েন করেছে। সেনাবাহিনীর আক্রমণাত্মক অবস্থান উপেক্ষা করেও সোমবার বেশ কিছু বিক্ষোভকারী জড়ো হতে শুরু করেছেন। গত ১০ দিন ধরে তারা রাজপথে বিক্ষোভ করছেন গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে। তারা তাদের ভোটে নির্বাচিত নেতাদের গ্রেফতারের নিন্দা ও তাদের মুক্তি দাবি করছেন। অ্যাসিসট্যান্স অ্যাসোসিয়েশন ফর পলিটিক্যাল প্রিজনারস নামের একটি পর্যবেক্ষক গোষ্ঠীর ভাষ্য– মিয়ানমারে অভ্যুত্থানের পর থেকে এখন পর্যন্ত প্রায় ৪০০ ব্যক্তিকে আটক বা গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের অধিকাংশই রাত্রিকালীন অভিযানে গ্রেফতার হন।

খবর সারাবেলা / ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১ / এমএম