বাজারে পেঁয়াজের দাম এক ধাক্কায় সেঞ্চুরি

ভারত রপ্তানি বন্ধের ২৪ ঘণ্টা না পেরোতেই ঢাকায় পেয়াজের বাজারে অস্থিরতা শুরু গেছে। খুচরা বাজারে রাতারাতি এক ধাক্কায় পণ্যটির দাম দ্বিগুণ বেড়ে কেজি ১০০ টাকা হয়ে গেছে। বাজারে পেঁয়াজ কিনতে গিয়ে অনেকেই খালি হাতে ফিরেছেন।

মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সকালে রাজধানীর কারওয়ান বাজার, মিরপুর-২, কাজীপাড়া, কচুক্ষেত ও হাতিরপুল, মালিবাগ বাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

বিক্রেতারা জানিয়েছেন, সোমবার ভারত রপ্তানি বন্ধের ঘোষণা দেয়ায় হঠাৎ করেই প্রচুর ক্রেতা দোকানে ভিড় করেছেন পেঁয়াজ কেনার জন্য। তবে বেশ কিছু দোকানেই পেঁয়াজ না পেয়ে শূন্য হাতেই ফিরতে হয়েছে ক্রেতাদের।

মিরপুর-২ ও ১০ এর কয়েকটি দোকান ঘুরে দেখা যায়, এসব দোকানে ভারতীয় পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৬৫ টাকায়। আর দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৭০ থেকে ৮০ টাকায়। কোনো কোনো দোকানে ৯০ টাকা দাম হাঁকাতেও দেখা গেছে।

মালিবাগ হাজীপাড়া বৌ-বাজারের ব্যবসায়ী মো. জাহাঙ্গীর বলেন, গতকাল দেশি পেঁয়াজের কেজি বিক্রি করেছি ৬০ টাকা। আজ পাইকারিতে দাম ৮০ টাকা। যে কারণে ৯০ টাকা কেজি পেঁয়াজ বিক্রি করছি। পরিস্থিতি যা তাতে মনে হচ্ছে পেঁয়াজের দাম আরও বাড়তে পারে। কারণ গতকাল ভারত রফতানি বন্ধ করার পর আজ পেঁয়াজ কেনার পরিমাণ বেড়ে গেছে।

একই বাজারে ১০০ টাকা কেজি পেঁয়াজ বিক্রি করা মো. সোহেল বলেন, আজ ১০০ টাকা কেজি কিনতে পারছেন। আগামীকাল দেখবেন ১৫০ টাকা কেজি কিনে খেতে হবে। আজ বিকেলেই দাম আরও বেড়ে যায় কিনা দেখেন। ইতোমধ্যে পাইকারি বাজারে পেঁয়াজের ক্রেতা বেড়ে গেছে।

এর আগে সোমবার কোনো ধরনের পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই হুট করে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করে দেয় ভারত। গত বছরও একইসময়ে কোনো ঘোষণা ছাড়াই ভারত পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করে দিলে ঢাকায় পেঁয়াজের দাম কেজি প্রতি ৩০০ টাকা পর্যন্ত উঠেছিল। এবারও অবস্থা তেমন হওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

খবর সারাবেলা / ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ / এমএম