প্রেমের সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে করণীয়

প্রথম দেখায় প্রেম না বুঝে না শুনে। ধীরে ধীরে সম্পর্ক আগাতে থাকে। এরপর মনের মিল হয়। বিজ্ঞানের মতই প্রেমেও বিপরীত মেরুতে আকর্ষণ হয়। প্রেম তো আসলে একটা অনুভব, আবেগ আর কিছু স্বতস্ফুর্ততা। তবে প্রেম গড়ার পর তা যেন ভেঙে না যায় তার প্রতি সহানুভূতিশীল ও যত্নবান হওয়া উচিত।

চুম্বকের মত আকর্ষণ থাকে প্রেমে। কারণ বিপরীত মেরুতেই এর যত আকর্ষণ। কারণে-অকারণে নিবিড় আত্মিক যোগ। এ যোগ আবার প্রেমের অন্যতম বৈশিষ্ট্য। উল্টো স্বভাবেই মানুষটাকেই যেন বেশি করে মন চায়। এমন উদাহরণ খুঁজে পেতে খুব বেশি কষ্ট করতে হবে না। হয়তো আপনিও এই তালিকাতেই পড়েন। যদি তাই-ই হয় তাহলে সম্পর্কের ক্ষেত্রে কিছু বিষয় মেনে চলতেই পারেন।

নিজের মতো থাকতে দিন

‘গিভ মি সাম স্পেস’— কোনও হলিউড সিনেমায় এই কথাটি শুনেই থাকবেন। সত্যিই সম্পর্কে একটু দূরত্বের প্রয়োজন। খুব কাছাকাছি চলে এসে দৃষ্টি ঝাপসা হয়ে যাবে। আর তাতেই সম্পর্ক তিক্ত হতে শুরু করে। উল্টো দিকের মানুষটাকে একটু নিজের মতো থাকতে দেওয়া উচিত। এতে পারস্পরিক সম্মান বজায় থাকে।

বিশ্বাস রাখুন

বিশ্বাসে মেলায় বস্তু, তর্কে বহু দূর। যে কোনও সম্পর্কের ক্ষেত্রেই এই আপ্ত বাক্যটি গুরুত্বপূর্ণ। আর বিপরীত মেরুর দুটি মানুষের ক্ষেত্রে আরও বেশি প্রযোজ্য। একটু বিশ্বাস করে সঙ্গীকে ছাড়তে শিখুন না! আখেরে লাভ আপনারই হবে।

আবেগকে সময় দিন

রাগ আর অভিমান সম্পর্কের সবচেয়ে বড় শত্রু। সঙ্গীর কোনও কাজে আপনার রাগ বা অভিমান হয়ে থাকলে সঙ্গে সঙ্গে রিঅ্যাক্ট করে ফেলবেন না। একটু আলাদা জায়গায় চলে যান। নিজের আবেগকে প্রশমিত হতে দিন। তাহলেই আপনি যুক্তি দিয়ে বিচার করতে সক্ষম হবেন।

পাশে থাকুন

হতেই পারে, আপনি যেটা করতে পছন্দ করেন না, তা আপনার সঙ্গীর পছন্দ। ইচ্ছে না থাকলেও তাকে সঙ্গ দিন।

নতুনত্বে ভয় পাবেন না

জীবন পরিবর্তনশীল। পরিবর্তন যদি ভালর জন্য হয়, আর ভালবাসার জন্য হয় তাকে আপন করে নিতে তো কোনও সমস্যা নেই! নতুনত্বকে ভয় পাবেন না। বরং তাকে মুক্ত মনে আলিঙ্গন করুন।

মিল খুঁজুন

বিপরীত মেরুর মানুষদেরও কিছু না কিছু তো মিল থাকে। সেটা খুঁজে বের করার চেষ্টা করুন। একান্ত না থাকলে তৈরি করুন। প্রয়োজনে কোনও ইনডোর গেম খেলতে পারেন। এতে সম্পর্ক আরও পোক্ত হবে।

খবর সারাবেলা / ১৭ অক্টোবর ২০২০ / এমএম