ঈদের পর যেসব বদল আনবেন খাবারে

কোরবানি ঈদে মাংস তুলনামূলক বেশি খাওয়া পড়ে। ঈদের পর খাদ্য তালিকা নিয়ে তাই বাড়তি সচেতনতা প্রয়োজন। যাদের ডায়াবেটিকস, পেটের সমস্যা, গ্যাস্টিক, উচ্চ রক্তচাপ বা হৃদরোগ রয়েছে, তারা একটানা মাংস খাবেন না। মিষ্টিজাতীয় খাবারও এড়িয়ে চলুন এখন।

ডাবের পানি পান করুন

ঈদের পর পেট ফেঁপে যাওয়া, জ্বালাপোড়া ও ব্যথার সমস্যায় ভোগেন অনেকে। কারোর আবার বারবার পায়খানা হয়ে থাকে, দেখা দদিতে পারে কোষ্ঠকাঠিন্য। এসব সমস্যা দূরে রাখতে প্রতিদিন পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি পান করুন।
এ সময় মৌসুমী ফল বেশি রাখুন খাবারের তালিকায়। এছাড়া বাসায় বানানো ফলের শরবত, লেবুর শরবত, ডাবের পানি, বোরহানি ইত্যাদি খেতে পারেন।

ফল ও ফলের রস রাখুন খাবার তালিকায়

যাদের বয়স কম এবং শারীরিক অসুস্থতা নেই, তারা পছন্দ মতো খাবার খেতে পারেন। তবে চর্বিজাতীয় খাবার বর্জন করাই ভালো। বেশি মাংস খাওয়ার ফলে অনেকেরই কোষ্ঠকাঠিন্য, পায়ুপথে জ্বালাপোড়া করা এমনকি রক্তক্ষরণ পর্যন্ত হতে পারে। তাই প্রচুর পরিমাণে পানি খেতে হবে। খেতে হবে ইসুবগুলের ভুষি ও তরল খাবার।

এছাড়াও খাবারে সবজি এবং সালাদ রাখুন প্রচুর পরিমাণে। খাবারের মাঝে পানি পান করবেন না। কারণ আমাদের হজমের যে তরল পদার্থ থাকে, সেটা পাতলা হয়ে গেলে হজমের সমস্যা দেখা দেয়। খাবারের অন্তত এক ঘণ্টা পর পানি পান করুন।

লেখক- নিউট্রিশন কনসালট্যান্ট , নিউ পিসি ল্যাব

খবর সারাবেলা / ০৪ আগস্ট ২০২০ / এমএম