আবাসিক হোটেলে যেসব কাজে সতর্ক থাকবেন

আমাদের বিভিন্ন সময়ে কাজের কারণে আবাসিক হোটেলে থাকতে হয়। আবার বেড়াতে গেলেও হোটেলে থাকা লাগে। আবাসিক হোটেলে থাকার সময় কিছু বিষয় আমাদের অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে। না হলে বড় ধরনের সমস্যায় পড়তে হতে পারে। চলুন জেনে নেই যে কাজগুলো হোটেলে একেবারেই করা যাবে না।

কেউ নক করলেই দরজা খোলা যাবে না

কেউ দরজায় নক করল আর অমনি দরজা খুলে দিলেন। পড়ে যেতে পারেন বড় কোনো সমস্যায়। সুতরাং আগে যাচাই করে নিন তারপর দরজা খুলুন। মনে রাখবেন সব হোটেল কিন্তু তেমন নিরাপদ নয়।

হোটেলের মিনিবারে যাওয়া যাবে না

সফট ড্রিংক কিংবা হার্ড ড্রিংক, যেমন পানীয়ই খান না কেন, সেটি হোটেলের মিনিবার থেকে খাওয়া যাবে না। দেখা যায় হোটেলের রুম ভাড়ার চেয়ে মিনিবারের খরচই বেশি হয়ে গেছে। পকেট কাটার জন্য ওস্তাদ এই মিনিবার।

হোটেলের জিনিস ব্যাবহারে সতর্কতা

হোটেলের দামি আসবাব, এমনকি টাওয়েল, পেইন্টিং এগুলো নিজের সম্পদ ভাববেন না। অনেক সময় দেখা যায় হোটেল কক্ষ থেকে বের হয়ে যাওয়া সময় এগুলো ব্যাগে ভরে নিয়ে যায় অনেকে। ধরা পড়লে মান সম্মান নিয়ে টানাটানি পড়বে।

ছারপোকা থেকে সাবধান

যত ভালো মানের হোটেল হোক আর বিলাসবহুল কক্ষই হোক। ছারপোকা কিন্তু একবার ঢুকে গেলে বিপদ। কাজেই ছারপোকা আছে কিনা ভালো করে পরখ করে নিন। ছারপোকা থাকলে কতৃপক্ষকে জানান না হলে আপনার আরাম আয়েস গোল্লায় যাবে।

হোটেলের ট্যাপের পানি খাবেন না

দামি হোটেল হোলেও লাইনের পামি কিন্তু দামি না। সুতরাং ট্যাপের পানি না খেয়ে বোতলের পানি কিনে খাবেন। পানি বাহিত রোখ থেকে নিজেকে সুরক্ষা দিন।

রিমোট ব্যবহারে সতর্ক হোন

প্রতিদিন হোটেল কক্ষের রিমোটের হাত বদল হতে থাকে। সুতারং জীবাণু জড়ানোর আশঙ্কাও বেশি। সম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা গেছে টেলিভিশনের রিমোট থেকে অনেক জীবাণু ছড়িয়েছে।

রুমের নম্বর গোপন রাখুন

যেখানে সেখানে বা চেক-ইনের সময় আপনার হোটেলের রুম নম্বরটি নিজে উচ্চারণ করবেন না। দুষ্কৃতকারীরা এসব তথ্যের জন্যই মুখিয়ে থাকে। এ বিষয়টি যতটা পারেন গোপন রাখুন, নতুন পরিচিত কাউকেই রুম নম্বর জানাতে যাবেন না।

রুমে মূল্যবান জিনিস রাখবেন না

মূল্যবান জিনিসপত্র অনেকেই হোটেলরুমের গোপনীয় কোনো একটি জায়গায় রেখে দেন। এটি চরম ভুল। হোটেলরুম থেকে চুরি করতে যারা ওস্তাদ, তারা কিন্তু ওই সব ‘গোপন’ জায়গার হদিস আপনার চেয়ে ভালো জানে!

ডিস্টার্ব করবেন না

ডু নট ডিস্টার্ব লেখা সাইন দরজার বাইরে ঝুলিয়ে দিন। তাহলে সচারচর উটকোভাবে কেউ আপনার ব্যক্তিগত সময়ে বাঁধা দিবে না।

খবর সারাবেলা / ৬ এপ্রিল ২০২১ / এমএম